মার্চ ০৪, ২০২৪ ১৫:২৯ Asia/Dhaka

রাশিয়ার সামরিক বাহিনী ইউক্রেন যুদ্ধে মার্কিন নির্মিত আরো একটি আব্রামস ট্যাঙ্ক ধ্বংস করেছে। গতকাল (রোববার) ধ্বংসকৃত ট্যাংকের একটি ভিডিও এরইমধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে এবং রুশ বার্তা সংস্থা রাশিয়া টুডে তা শেয়ার করেছে।

এর আগেও আমেরিকার একটি আব্রামস ট্যাংক ধ্বংস করেছে রাশিয়া সেনারা। ভ্লাদিমির সলোভিয়েভ নামে এক রুশ সাংবাদিক জানান, রাশিয়ার সেনারা প্রথমে আব্রামস ট্যাংকে একটি গ্রেনেড ছুঁড়ে তার গতিরোধ করে; তারপর রুশ সেনারা সঙ্ঘবদ্ধ আক্রমণের মধ্য দিয়ে চূড়ান্তভাবে সেটি ধ্বংস করে।

এক সপ্তাহের ব্যবধানে রাশিয়ার সেনাদের হামলায় ইউক্রেনের সেনারা মার্কিন নির্মিত দুটি আব্রামস ট্যাংক হারালো। সম্প্রতি ইউক্রেনের কাছ থেকে রাশিয়ার সেনারা আভদিবকা নামে যে শহর দখল করে নিয়েছে তার কাছেই ট্যাংক দুটি ধ্বংস হয়।

২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে আমেরিকা ইউক্রেনকে ৩১টি আব্রামস ট্যাংক দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিল। গত শরতে এসব ট্যাংক ইউক্রেনে পৌঁছালেও ফেব্রুয়ারির আগ পর্যন্ত সেগুলোকে যুদ্ধক্ষেত্রে নামানো হয়নি। আমেরিকা ইউক্রেনকে আব্রামস ট্যাংক দিতে রাজি হওয়ার পর জার্মানি কিয়েভ সরকারকে লেপার্ড- টু ট্যাঙ্ক দেয়ার ঘোষণা দেয়। জার্মানির এ ট্যাংকও যুদ্ধক্ষেত্রে বড় কোনো পরিবর্তন আনতে পারেনি বরং ব্যাপকভাবে ধ্বংস হয়েছে।

রাশিয়া শুরু থেকেই বলে আসছে, পশ্চিমাদের কোন অস্ত্রের বহরই ইউক্রেন যুদ্ধের পরিস্থিতি পাল্টে দিতে পারবে না। রাশিয়া আরো বলেছে, ইউক্রেনকে যে সমস্ত অস্ত্র দেয়া হবে তার সবকিছুই পুড়িয়ে দেয়া হবে।

এদিকে, ইউক্রেনে আব্রামস ট্যাংক পাঠানোর জন্য রাশিয়ার সেনারা মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। কারণ তারা প্রতিটি ট্যাংক ধ্বংস করার জন্য বাড়তি অর্থ পাচ্ছেন। 

একজন সেনা কৌতুক করে বলেছেন, রাশিয়ার প্রতিটি সেনার বোনাস পাওয়ার জন্য ইউক্রেনে পর্যাপ্ত আব্রামস ট্যাঙ্ক নেই। সেজন্য বাইডেনকে তাদের ধ্বংস করা প্রতিটি ট্যাঙ্কের জন্য শতকরা ১০ ভাগ কমিশন দেয়া উচিত। ওই সেনা আরো পরামর্শ দিয়েছেন, সৈন্যদের টাকা পাঠানো সহজ করার জন্য বাইডেনের কাছে একটি রাশিয়ান এমআইআর ডেবিট কার্ড থাকা উচিত।#

পার্সটুডে/এসআইবি/এমএআর/৪

ট্যাগ